শুক্রবার, ১৬ এপ্রিল ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ৩ বৈশাখ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

ভাটেরায় পুর্ব শত্রুতার জেরে টাকা-পয়সা, স্বর্ণালংকার সহ মালামাল লুটপাটের অভিযোগ



বিশেষ প্রতিনিধি : বাড়িতে মালিক পক্ষ না থাকার সুবাদে পুর্ব শত্রুতার জেরে ঘরের জানালা ভেঙে ঘরে থাকা মুল্যবান জিনিসপত্র, নগদ টাকা-পয়সা সহ স্বর্ণালংকার লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে।

ঘটনাটি ঘটেছে ৬ এপ্রিল দিবাগত রাতে মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়া থানার ৩ নং ভাটেরা ইউনিয়নের অন্তর্গত ইসলামনগর গ্রামের অয়েছ আহমেদ চৌধুরীর বাড়িতে।

এবিষয়ে ৮ জনের নাম উল্লেখ করে লিখিত অভিযোগ করেছেন অয়েছ আহমেদ চৌধুরীর স্ত্রী জহুরা বেগম। তিনি অভিযোগে উল্লেখ করেন একি গ্রামের বিবাদী হেলাল আহমদ চৌধুরী, ফরহাদ আহমদ চৌধুরী, নিয়াজ আহমদ চৌধুরী, রিফাত আহমদ চৌধুরী, রাহাত আহমদ চৌধুরী, মুহিত আহমদ চৌধুরী, মনির উদ্দিন চৌধুরী সহ নাজিম উদ্দীন চৌধুরী বিগত ৫ এপ্রিল দুপুর আনুমানিক ১২ টার সময় আমাদের বাড়িতে জোরপূর্বক ভাবে প্রবেশ করে আমাদের বৈধ সম্পত্তির বাড়ির পুর্বাংশের জায়গা জবর দখল করে এবং আমাদের প্রাণনাশের হুমকি ধামকি দিয়ে যায়।

তিনি বলেন- এর আগে তারা দীর্ঘদিন যাবত রাতের বেলা দরজা-জানালায় ধাক্কা-ধাক্কি সহ অস্ত্র নিয়ে ভয় দেখাত। এব্যাপারে তিনি এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিদের অবগত করে আসছেন তারপরেও তারা তেমে নেই বলে অভিযোগ করেন জহুরা বেগম। তিনি বলেন- গত ৪ এপ্রিল তারিখে আমি আত্নীয়ের বাড়ীতে গেলে তারা ৫ এপ্রিল তারিখে বাড়ীর পুর্ব ও দক্ষিণ পাসের প্রায় পঞ্চাশ থেকে ষাট হাজার টাকার গাছ কেটে নিয়ে যায়, এর পরেও তারা থেমে থাকেনি! গত ৬ এপ্রিল আমরা বাড়ীতে না থাকার সুবাদে রাত আনুমানিক ২ টার সময় আমার ঘরের দক্ষিণ পাসের জানালার রড কেটে ঘরে থাকা নগদ ৭০ হাজার টাকা ও প্রায় ৪ ভরি স্বর্ণালংকার সহ অন্যান্য মুল্যবান জিনিসপত্র নিয়ে যায়। পরে আমরা আসপাশের মানুষের মাধ্যমে জেনে এসে দেখি ঘরে থাকা নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার সহ মুল্যবান জিনিসপত্র নাই। পরে আমি এবিষয়ে কুলাউড়া থানায় লিখিত অভিযোগ করি।

এদিকে জহুরা বেগম বলেন- আমরা থানায় লিখিত অভিযোগ করার কারণে বিবাদীগণ আমাদের উপরে আরও ক্ষেপে গেছে এখন তারা আমাদেরকে বাড়ীতে থাকতে দিচ্ছেনা, তাদের ভয়ে আমি ছেলে-মেয়েদের নিয়ে এখন নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন বলে তিনি জানান।

এবিষয়ে কুলাউড়া থানার এস আই হারুন বলেন- আমরা অভিযোগ পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে গেছি তদন্ত করে আইনানুগ ব্যাবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন