রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

 

ফেঞ্চুগঞ্জে পল্লী বিদ্যুতের অস্বাভাবিক বিল, গ্রাহকদের ক্ষোভ প্রকাশ



ডেইলি ফেঞ্চুগঞ্জ ডটকম : ফেঞ্চুগঞ্জে গ্রাহকদের কাছ থেকে অতিরিক্ত বিদ্যুৎবিল আদায় করছে পল্লী বিদ্যুৎ। করোনাকালে বাড়তি বিলের চাপে দিশেহারা হয়ে পড়েছেন গ্রাহকরা। অতিরিক্ত বিলের বিষয়ে পল্লী বিদ্যুতের অফিসে অভিযোগ করেও কোনো সুরাহা পাচ্ছেন না তারা। উল্টো তারা নানা হয়রানির শিকার হচ্ছেন। এতে গ্রাহকরা ক্ষোভ প্রকাশ করছেন।

ভুক্তভোগী গ্রাহকদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে- গেল কয়েকমাস থেকে ফেঞ্চুগঞ্জে পল্লী বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ গ্রাহকদের অতিরিক্ত বিল ধরিয়ে দেওয়া হচ্ছে। তাদের অভিযোগ- মিটারে রিডিংয়ে ইউনিট কম থাকলেও তাদের বিলের কাগজের সঙ্গে তা মিলছে না। রিডাররা যথাযথভাবে মিটার না দেখে মনগড়া বিল তৈরি করছেন। তাদের গাফিলতির কারণে তাদের অতিরিক্ত বিল দিতে হচ্ছে। করোনাকালে অতিরিক্ত বিল সাধারণ গ্রাহকদের পক্ষে পরিশোধ কষ্টসাধ্য হয়ে পড়েছে। এ বিষয়ে পল্লী বিদ্যুতের আঞ্চলিক কার্যালয়ে অভিযোগ করেও তারা কোনো সুরাহা পাচ্ছেন না। উল্টো তারা হয়রানির শিকার হচ্ছেন। তাই বাধ্য হয়ে তারা অতিরিক্ত বিল পরিশোধ করছেন।

ফেঞ্চুগঞ্জের বিভিন্ন এলাকার বাসিন্দা পল্লী বিদ্যুৎ গ্রাহকরা বলেন- প্রতিমাসে আমরা ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে ১৪০০ টাকা বিদ্যুৎ বিল আসে। সে হিসেবে মে ও জুন মাস মিলে ২৮০০ টাকা বিদ্যুৎ বিল আসার কথা। কিন্তু আমাকে দুই মাসের মিলিয়ে ৩৫৭৫ টাকা বিদ্যুৎ বিল দেওয়া হয়েছে। এর আগেও কয়েকবার বেশি বিল দেওয়া হয়েছিল। আমরার মতো এভাবে অনেক গ্রাহককে বাড়তি বিল দেওয়া হয়েছে। অনেকেই বিদ্যুৎ অফিসে বলেও কোনো সমাধান পাচ্ছেন না। প্রতিবার কেন বাড়তি বিল দিয়ে আমাদের হয়রানি করা হচ্ছে। নাকি পল্লী বিদ্যুৎ অফিস ইচ্ছে করেই বাড়তি বিল আদায় করছে?

সংবাদটি শেয়ার করুন