সোমবার, ২১ জুন ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ আষাঢ় ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

দক্ষিণ সুরমায় অপহরণ মামলা, ঢাকার উত্তরখান থেকে লাবনী গ্রেফতার



দক্ষিণ সুরমা প্রতিনিধিঃ দক্ষিণ সুরমার আলোচিত তারেক অপহরণের ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় অন্যতম আসামী লাবনীকে রাজধানী ঢাকার উত্তরখান এলাকা থেকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। শনিবার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব-১ এর একটি দল অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করে।

লাবণীর পুরো নাম মোছা. লাভলী আক্তার লাবনী (৩৫)। সে কুড়িগ্রাম জেলার চর রাজিবপুর থানার নয়ারচরে রেজাউল করিমের স্ত্রী। তারা উত্তরখানের সুবার বাড়ী রোডের আব্দুল গফুর বিল্ডিং ৯৬/২ তৃতীয় তলায় থাকত।

র‌্যাব-১ এর সিনিয়র এএসপি মো. আকরামুল হাসানের নেতৃত্বে এই অভিযান চালানো হয় বলে র‌্যাবের লিগ্যান এন্ড মিডিয়া উইং থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

মামলার বিবরণ সূত্রে এতে বলা হয়েছে, ভিকটিমের পূর্ব পরিচিতির ভিত্তিতে লাবনীসহ আসামীরা গত বছরের ১ডিসেম্বর সিলেটে বেড়াতে যান। তখন তারা তারেককে সিলেট কদমতলী বাস টার্মিনাল থেকে তাদের সাথে ঢাকা নিয়ে আসে।

ঢাকা নেওয়ার পর লাবনীর স্বামী মো. রেজাউল করিম রেজা কানাডা নেওয়ার কথা বলে তারেককে ভারতে নিয়ে একটি বদ্ধ ঘরে আটক রেখে শারীরিক ভাবে নির্যাতন করে।

পরবর্তীতে আসামী লাবনী আক্তার তার ব্যবহৃত মোবাইল সীম নং-০১৬৮৯৫২৮২৭৫ হতে বাদী তারেকের বাবা আব্দুল আহাদকে জানান অপহৃত ভিকটিম তারেক কানাডায় চলে গেছে।

এই বলে তিনি বাদীর কাছ থেকে অপর এক আসামী সমর দাসের একাউন্টে (নং- ১১০৫২০২৭৯৩০৬২০০১) মেসার্স বিনা এন্টারপ্রাইজ, ব্রাক ব্যাংক লিঃ, কেটিজি শাখা, চট্টগ্রাম) সাড়ে ১১লাখ টাকা পাঠান। পরবর্তীতে এসএ পরিবহনের মাধ্যমে আরও দেড় লক্ষ টাকা লাবনীকে দেন। টাকা পাওয়ার পরে আসামীরা আব্দুল আহাদকে ঢাকায় এসে তার ছেলে অপহৃত ভিকটিম তারেককে নিয়ে যাওয়ার জন্য বলে।

তখন বাদীসহ মামলার দুই স্বাক্ষী সানুর আহম্মেদ ও হাসানসহ ঢাকায় গেলে আসামীরা আরও দশ লাখ টাকা দাবি করে। সে সময় বাদীসহ তার সঙ্গীয়রা কৌশলে সেখান থেকে পালিয়ে আসেন।

গ্রেফতারকৃত লাবনীর বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন বলে র‌্যাব জানিয়েছে।

 

সংবাদটি শেয়ার করুন