শুক্রবার, ১৪ মে ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ৩১ বৈশাখ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

করোনা ভ্যাকসিন সংকটে সিলেট বিভাগ…



ডেইলি ফেঞ্চুগঞ্জ ডটকম : সিলেট বিভাগ করোনা ভ্যাকসিন সংকটে পড়ছে। বিভাগের চার জেলায় কমে এসেছে ভ্যাকসিনের মজুদ। অবশিষ্ট মজুত দিয়ে চলবে আরও কিছুদিন। পুনরায় ভ্যাকসিনের চালান না আসলে দ্বিতীয় ডোজ থেকে বঞ্চিত হবেন লক্ষাধিক মানুষ। সেসঙ্গে অনেকের ভাগ্যে প্রথম ডোজও ঝুটবে না। এমনটাই আভাস দিয়েছেন সিলেটের স্বাস্থ্য কর্মকর্তারাও।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সিলেট কার্যালয়ের তথ্যমতে- প্রথম চালানে বিভাগে ৪ লাখ ৪৪ হাজার ডোজ করোনা টিকা আসে। এরমধ্যে সিলেট জেলায় প্রথম ধাপে আসে দুই লাখ ২৮ হাজার ভ্যাকসিন। এরপর দ্বিতীয় ধাপে আরও ৭২ হাজার ভ্যাকসিন আসে। এগুলো শেষ হওয়ার আগে পরবর্তী টিকার চালান আসার কথা ছিল। যেকারণে ভ্যাকসিনের সংকট পড়বে না, জানিয়েছিলেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সিলেটের সহকারী পরিচালক ডা. আনিসুর রহমান ও সিলেটের সিভিল সার্জন প্রেমানন্দ মণ্ডল। তারাই এখন বলছেন- কিছু দিনের মধ্যে পুনরায় ভ্যাকসিনের চালান না আসলে সংকট সৃষ্টি হবে।

সংশ্লিষ্টদের তথ্যমতে, সর্বশেষ মঙ্গলবার (২০ এপ্রিল) করোনা ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন ৯ হাজার ৮৭ জন। এরমধ্যে ৫ হাজার ৭০৩ জন পুরুষ ও ৩ হাজার ৩৮৪ জন নারী। এদিন প্রথম ডোজ নিয়েছেন ৭৬০ জন। এরমধ্যে পুরুষ ৫৪৮ জন এবং নারী ২১২ জন।

সংশ্লিষ্টরা বলেন, গত ৭ ফেব্রুয়ারি সিলেটে গণটিকা নেওয়ার কার্যক্রম শুরু হয়। এ পর্যন্ত বিভাগে প্রথম ডোজের জন্য ৩ লাখ ৭২ হাজার ৮১৮ জন রেজিস্ট্রেশন করে প্রথম ডোজ নিয়েছেন ২ লাখ ৯৬ হাজার ৬৫১ জন। এ পর্যন্ত দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন এক লাখ ১১ হাজার ২২৩ জন। বিপরীতে ভায়াল মজুদ আছে ৭ হাজার ৩৮৫টি। প্রতিটি ভায়ালে ১০টি করে ডোজ থাকে। সে হিসেবে মঙ্গলবার পর্যন্ত টিকা মজুতের পরিমাণ ৭৩ হাজার ৮৫০ ডোজ রয়েছে জানান সংশ্লিষ্টরা। সংশ্লিষ্টরা আরও বলেন, এখনো দ্বিতীয় ডোজ নেওয়ার বাকি আছেন এক লাখ ৮৫ হাজার ৪২৮ জন। আর নিবন্ধিতদের মধ্যে প্রথম ডোজ নেওয়ার বাকি রয়েছেন ৭৬ হাজার ১৬৭ জন। সে হিসেবে বিভাগে প্রথম ও দ্বিতীয় ডোজ মিলিয়ে এখনো এক লাখ ৮৭ হাজার ৭৪৫ জন টিকা পাবেন। বিপরীতে ভ্যাকসিন আছে ৭৩ হাজার ৮৫০ ডোজ।

সংবাদটি শেয়ার করুন