রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

 

‘কওমি মাদ্রাসার ছাত্র ও শিক্ষকেরা সব ধরনের রাজনীতি থেকে মুক্ত থাকবেন বলে সিদ্ধান্ত’…



ডেইলি ফেঞ্চুগঞ্জ ডটকম : কওমি মাদ্রাসার ছাত্র ও শিক্ষকেরা প্রচলিত সব ধরনের রাজনীতি থেকে মুক্ত থাকবেন বলে সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছে আল-হাইআতুল উলয়া লিল-জামি’আতিল কওমিয়া বাংলাদেশ। আল-হাইআতুলের অধীনে কওমি মাদ্রাসার সর্বোচ্চ স্তর দাওরায়ে হাদিসের পরীক্ষা হয়ে থাকে।

আজ রোববার যাত্রাবাড়ীর জামিয়া ইসলামিয়া দারুল উলুম মাদানিয়া মাদ্রাসায় আল-হাইআতুলের স্থায়ী কমিটির একটি সভা অনুষ্ঠিত হয়। ওই সভা থেকে এ সিদ্ধান্ত আসে। এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়- আল-হাইআতুলের তিন সদস্যের একটি প্রতিনিধিদল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করে তাঁদের এই সিদ্ধান্তের কথা জানাবেন বলেও সিদ্ধান্ত হয়। এই প্রতিনিধিদলে থাকবেন মাওলানা মুফতি রুহুল আমিন, মাওলানা মুফতি মোহাম্মদ আলী ও মাওলানা মুফতি জসীমুদ্দীন।

আল-হাইআতুল উলয়ার সদস্য মুফতি ফয়জুল্লাহ মিডিয়াকে এসব তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি নিজে ওই বৈঠকেও উপস্থিত ছিলেন।

সভা থেকে কওমি মাদ্রাসার যেসব নিরীহ ছাত্র, শিক্ষক, আলেম-ওলামা, ধর্মপ্রাণ মুসলমান এবং মসজিদের ইমাম ও মুসল্লিদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে, তাঁদের ‘রমজানের এই রহমতের মাস বিবেচনায়’ সরকারের কাছে তাঁদের মুক্তির আহ্বান জানানো হয়।

‘নিরীহ’ আলেম-ওলামা, মাদ্রাসাছাত্র ও ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের হয়রানি না করার জন্য ‘বিশেষভাবে’ অনুরোধও জানানো হয়। স্থায়ী কমিটি স্বাস্থ্যবিধি মেনে রোজার মধ্যেই হিফজ ও মক্তব বিভাগ খুলে দেওয়া ও রমজানের পর কওমি মাদ্রাসার শিক্ষা কার্যক্রম চালু করতে দেওয়ার জন্য সরকারের প্রতি বিশেষভাবে আবেদন জানিয়েছে।

সভায় সিদ্ধান্ত হয়- কওমি মাদ্রাসা সম্পর্কিত সব সিদ্ধান্ত ও পদক্ষেপ গ্রহণ করবে একমাত্র আল-হাইআতুল উলয়া। এর অধীন এক বা একাধিক বোর্ড কিংবা কোনো সংগঠন বা ব্যক্তি আল-হাইআতুল উলয়ার সিদ্ধান্ত ছাড়া আলাদাভাবে কওমি মাদ্রাসা বিষয়ক কোনো সিদ্ধান্ত বা পদক্ষেপ বা উদ্যোগ গ্রহণ করতে পারবে না। কওমি মাদ্রাসার ছাত্র ও শিক্ষকেরা প্রচলিত সব ধরনের রাজনীতি থেকে মুক্ত থাকবে। আল-হাইআতুল উলয়ার সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের জন্য এবং কওমি মাদ্রাসা সম্পর্কিত সব ধরনের সিদ্ধান্ত গ্রহণ ও তত্ত্বাবধানের জন্য আল-হাইআতুল উলয়ার অধীন পাঁচ বোর্ডের পাঁচজন, বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া থেকে পাঁচজন এবং চেয়ারম্যানের মনোনীত পাঁচজনের সমন্বয়ে ১৫ জনের একটি বাস্তবায়ন উপকমিটি গঠিত হবে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিটি সই করেছেন আল-হাইআতুল উলয়া লিল জামি’আতিল কওমিয়া বাংলাদেশের চেয়ারম্যান ও বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া বাংলাদেশের সভাপতি আল্লামা মাহমুদুল হাসান। সূত্রঃ প্রথম আলো

সংবাদটি শেয়ার করুন