সোমবার, ২ অগাস্ট ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ১৮ শ্রাবণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

 

ঈদুল ফিতরে হাবিবের বাড়ী সাধারণ মানুষের পদচারণা ছিলো চোখে পড়ার মতো



বিশেষ প্রতিনিধি : পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে সিলেট ৩ আসনের উপনির্বাচনে নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী ও সিলেট জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য হাবিবুর রহমান হাবিবের গ্রামের বাড়ি দক্ষিণ সুরমার কামালবাজার ইউনিয়নের ধরগাঁও গ্রাম পরিণত হয়েছে এক উৎসবের গ্রাম। ঈদের প্রথম দিন থেকে হাবিবুর রহমান হাবিবের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় করতে দলীয় নেতা কর্মী থেকে শুরু সাধারণ মানুষের পদচারণা ছিলো চোখে পড়ার মতো।

শুক্রবার পবিত্র ঈদুল ফিতরের দিন থেকে শুরু করে দ্বিতীয় ও রোববার তৃতীয় দিনও সিলেট ৩ আসনের অন্তর্গত দক্ষিণ সুরমা, ফেঞ্চুগঞ্জ, বালাগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগ অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মী ও বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ সহ প্রচুর সংখক সাধারণ মানুষ এসেছেন তাদের প্রিয় নেতার সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় করতে।

সিলেট ৩ আসনের আসন্ন উপনির্বাচনে নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী ও সিলেট জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য হাবিবুর রহমান হাবিবও আবেগাপ্লুত তার এলাকার মানুষের এমন ভালোবাসায়। তাইতো তার মনের কথাগুলো শেয়ার করেছেন ব্যক্তিগত ফেসবুক ওয়ালে।

রোববার বিকেলে তিনি তার ফেসবুকে আবেগণ পোষ্ট দেন, পাঠকের জন্য পোষ্টটি হুবহু তোলে ধরা হলো- প্রতি বছরই ঈদের দিন আমার মা-বাবাকে খুব বেশি মনে পড়ে, বিষণ্ণ থাকে মন! তবে ঈদের দিন যখন এলাকায় লোকজন, দলীয় নেতাকর্মী আমার বাড়িতে আসেন তখন মনটা আনন্দে ভরে উঠে। মা-বাবাহীন এবারের ঈদেও এর ব্যাতিক্রম হয়নি।

পবিত্র ঈদ উল ফিতরের দিন সকাল থেকে রাত পর্যন্ত এবং পরের দিন অসংখ্য দলীয় নেতাকর্মী ও এলাকার মানুষ আমার বাড়িতে এসেছিলেন।

দক্ষিন সুরমা, ফেঞ্চুগঞ্জ, বালাগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগ অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মী, বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ সহ যারা কষ্ট করে আমার সাথে শুভেচ্ছা বিনিময়ে এসেছিলেন সকলকে আমার ব্যক্তিগত পক্ষ থেকে এবং আমার পরিবারের পক্ষ থেকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি জেলা আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ এবং দক্ষিণ সুরমা উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা হাজি সাইফুল আলম, সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট শামিম আহমদ, বালাগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আনহার মিয়া ও বিভিন্ন অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের সভাপতি/সাধারণ সম্পাদকসহ সবাইকে।

সংবাদটি শেয়ার করুন