শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ১০ আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

 

অসামাজিকতার অভয়ারোণ্য সিলেটের ‌রেষ্ট হাউসগুলো, ধরা-ছোঁয়ার বাইরে মূল হোতারা



ডেইলি ফেঞ্চুগঞ্জ ডটকম : সিলেটের সুরমা মার্কেট সহ রেষ্ট হাউসগুলোতে আইন শৃংখলা বাহিনীর অভিযানে ক’দিন পর পরই ধরা পড়ে অবৈধ দেহ ব্যবসার সাথে জড়িতদের। অসামাজিক কার্যকলাপে আইন শৃংখলা বাহিনীর অভিযানে আটক করা হয় এর সাথে জড়িত নারী-পুরুষদের। তবে অজ্ঞাত কারণে ধরা-ছোঁয়ার বাইরে রয়ে যায় এর মূল হোতারা।

পুলিশ জানায়- মঙ্গলবার (২৬ মে) দুপুর সাড়ে বারোটায় সুরমা মার্কেটস্থ নিউ সুরমা আবাসিক হোটেলে অভিযান চালিয়ে অসামাজিক কাজে লিপ্ত থাকার অভিযোগে ২জন নারী ও ২জন পুরুষকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এর মধ্যে সিলেটের জালালাবাদ থানার জঙ্গারকান্দি এলাকার নুর ইসলামের পুত্র মোঃ মিলন (২৪) ও জকিগঞ্জ থানার কসকনপুর বিয়াবাই এলাকার আব্দুল মানিকের পুত্র লিটন আহমদ (২০)। তবে গ্রেফতারকৃত দুই নারীর নাম ঠিকানা জানা যায়নি।

রোববার (২৪ মে) দুপুুর আড়াইটার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে কোতোয়ালি থানা পুলিশ সিলেট নগরীর সুরমা মার্কেটের বদরুল রেষ্ট হাউস থেকে অসামাজিক কাজের অভিযোগে ২ নারীসহ মোট ৭ জনকে আটক করা হয়েছে।

তারা হলেন- মোগলাবাজারের সুরিগাও গ্রামের মাখন মিয়ার ছেলে শায়েখ আহম্মদ (১৮), মাতাহার আলীর ছেলে সাকিব আহম্মেদ (২০) ও খসরু মিয়ার ছেলে তানভীর আহমদ (১৮), সুনামগঞ্জের ভুতিয়ারাপুর গ্রামের ফজলু মিয়ার ছেলে রুবেল মিয়া ( ২০) এবং ওসমানীনগরের সোয়ারগাওয়ের তৈয়ব আলীর ছেলে মারুফ আহমদ (২৪)। তবে আটক ২ নারীর বিস্তারিত পরিচয় জানা যায়নি।

এবিষয়ে সিলেট মহানগর পুলিশের কোতোয়ালী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এস এম আবু ফরহাদ জানান- এখানে আমরা নিয়মিত অভিযান চালাচ্ছি, আমাদের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন