শনিবার, ১৬ জানুয়ারী ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ৩ মাঘ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

আগস্ট আমাদের জাতীয় জীবনে এক দূর্বিষহ ও গভীরতম শোকের মাস



মোঃ সারোয়ার জাহান সুমন :: বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাঙালির স্বাধীনতা ও মুক্তির কান্ডারী। বাংলার ইতিহাসের মহানায়ক, স্বাধীন বাংলাদেশের স্বপ্নদ্রষ্টা, স্বাধীন-সার্বভৌম বাংলাদেশ রাষ্ট্রের প্রতিষ্ঠাতা। বাঙালি জাতির পিতা। সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি। স্বাধীনতার পর তাঁর স্বপ্ন ছিল সোনার বাংলাদেশ গড়ার।
কিন্তু ছদ্মবেশে লুকিয়ে থাকা দেশের শত্রুদের তা পছন্দ হয়নি। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টের রাতে নিষ্ঠুরতমভাবে বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে তার সহধর্মিণী বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব, বঙ্গবন্ধুর একমাত্র ভাই শেখ আবু নাসের, জ্যেষ্ঠ পুত্র বীর মুক্তিযোদ্ধা ক্যাপ্টেন শেখ কামাল, দ্বিতীয় পুত্র বীর মুক্তিযোদ্ধা লেফটেন্যান্ট শেখ জামাল, কনিষ্ঠ পুত্র শিশু শেখ রাসেল, নবপরিণীতা পুত্রবধূ সুলতানা কামাল ও রোজী জামাল, মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক শেখ ফজলুল হক মনি ও তার অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী বেগম আরজু মনি, স্বাধীনতা সংগ্রামের অন্যতম সংগঠক ও জাতির পিতার ভগ্নিপতি আবদুর রব সেরনিয়াবাত, তার ছোট মেয়ে বেবী সেরনিয়াবাত, কনিষ্ঠ পুত্র আরিফ সেরনিয়াবাত, নাতি সুকান্ত আবদুল্লাহ বাবু, ভাইয়ের ছেলে শহীদ সেরনিয়াবাত, আবদুল নঈম খান রিন্টু, বঙ্গবন্ধুর প্রধান নিরাপত্তা অফিসার কর্নেল জামিল উদ্দিন আহমেদ ও কর্তব্যরত অনেক কর্মকর্তা-কর্মচারীদের নির্বিঘ্নে হত্যা করা হয়। তারপরদিন অনেক গুরুত্বপূর্ণ আওয়ামী নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করা হয়।
সারা দেশ বিষন্নতায় ছেয়ে যায়। নেমে আসে শোকের ছায়া।
শুধু তাই নয়, এমাসেই ২১ শে আগস্ট ২০০৪ সালে, গ্রেনেড ছুঁড়ে হত্যার অপচেষ্টা করা হয়েছিল বঙ্গবন্ধু কন্যা বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে। ভাগ্যক্রমে তিনি বেঁচে গেলেও, সাবেক রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমানের স্ত্রী এবং আইভি রহমান সহ ২৪ জন নিহত ও প্রায় ৫০০ আওয়ামী নেতাকর্মী আহত হন।
আগস্ট এলেই বাঙালির হৃদয় হারানোর বেদনায় হাহাকার করে উঠে। হারানোর বেদনা বুকে নিয়ে আওয়ামিলীগ নেতাকর্মীরা মাস ব্যাপী বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করেন। এ জঘন্য হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত সকল আসামীদের প্রাপ্ত দন্ড কার্যকর করার আশাবাদ ব্যক্ত করছি।
এই শোকের মাসে গভীর শ্রদ্ধা ভরে স্মরণ করছি জাতির পিতাকে। স্মরণ করছি তাঁর সাথে শহীদ হওয়া বঙ্গমাতা সহ তাঁর তিন পুত্রকে এবং সেই কাল রাতে শহীদ হওয়া বঙ্গবন্ধুর বাকি পরিবার,নেতাকর্মী এবং কর্মচারীদের।
সংবাদটি শেয়ার করুন