বুধবার, ২০ জানুয়ারী ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ মাঘ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

রায়হান হত্যা : সিনিয়র কর্মকর্তা বলেছিল ‘তুমি চলে যাও’ – আকবর



ডেইলি ফেঞ্চুগঞ্জ ডটকম : বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়িতে ‘নির্যাতনে’ রায়হান নিহতের প্রায় এক মাস পর এই ঘটনার প্রধান অভিযুক্ত বহিস্কৃত এসআই আকবর হোসেন ভূইয়া আটক হয়েছেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া এক ভিডিওতে দেখা যায়, খুনের অভিযোগে অভিযুক্ত এই পুলিশ সদস্যকে আটক করেছে আদিবাসী খাসিয়া সম্প্রদায়ের লোকজন। ভাইরাল হওয়া ওই ভিডিওতে আকবরকে বলতে শোনা যায়, আমি একা মারিনি। পাঁচ-ছয়জন মারছিল। এজন্যে মরে গেছে।

তুমি কেন পালিয়েছো আদিবাসী খাসিয়া সম্প্রদায়ের লোকজনদের এমন প্রশ্নের জবাবে বহিস্কৃত এসআই আকবর বলেন- সাসপেন্ড করছে, এরেস্ট হতে পারি…।

আকবর বলেন- আমাকে সিনিয়র কর্মকর্তা বলেছিল- তুমি আপাতত চলে যাও, কয়মাস পরে আইসো। দুইমাস পরে সব ঠান্ডা হয়ে যাবে। ঠান্ডা হয়ে গেলে আবার সব হ্যান্ডেল করা যাবে। তবে কারা এমনটি বলেছিলেন বা কার নির্দেশে তিনি পালিয়ে যান এসম্পর্কে কিছু বলেননি।

এসময় ভিডিওতে দেখা যায়- আকবরের হাত-পা বাঁধতে বাঁধতে যুবকরা বলছেন- মাত্র ১০ হাজার টাকার জন্য সে মানুষকে মেরে ফেলেছে। ওই যে ইন্টারনেটে ভিডিও ছাড়ছে। রায়হান নাম।

ওই যুবকরা বাংলায় কথা বললেও তাদের কণ্ঠস্বর ছিলো অবাঙালিদের মতো। ওই ভিডিও দেখে কানাইঘাটের স্থানীয় কয়েকজন জানিয়েছেন- ভিডিওর যুবকদের কথাবার্তা ও এলাকা দেখে বুঝা গেছে, তারা ভারতের খাসিয়া আদিবাসী হতে পারেন।

এদিকে, সিলেটের এএসপি আব্দুল করিম জানিয়েছেন- ভারতে পালানোর সময় কানাইঘাটের লক্ষ্মীপ্রসাদ সীমান্ত এলাকা থেকে আকবরকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বিকেল ৫টায় তাকে নিয়ে সিলেটের পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করা হবে। এরআগে অবশ্য গোয়েন্দা সূত্রগুলো জানিয়েছিলো আকবর ভারতের মেঘালয় রাজ্যে পালিয়ে গেছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন